শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হলে কি বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়বে


শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ কেনো থাকবে, শিক্ষার্থীরা এমনিতেই করোনা মহামারীতে দীর্ঘদীন বন্ধের কারণে অনেকের লেখাপড়া বন্ধ হয়েছে, অনেক গ্রামের মেয়ে শিক্ষার্থীদের বিয়ে হয়েছে। বাড়ছে জনসংখ্যা। বাল্য বিবাহ যেভাবে করোনায় হয়েছে, সেভাবে বাড়ছে জনসংখ্যাও। তারপরেও অনেকের লেখাপড়া ভালো করে করতে পারেনাই।

এখন সরকার যদি সপ্তাহে দুই দিন বন্ধ দেয় তাহলে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় ব্যাঘাত ঘটতে পারে। কারন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একদিনের মুল্য অনেক। এছাড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বেশি বিদ্যুৎ খরচ হয়না। কয়েকটা রুমে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের একটু মাথার উপরে পাখা ঘুড়লে কি আসলে দেশে বিদ্যুৎ ঘাটতি দেখা দিবে। এর জন্য দেশের সবচেয়ে ভালো কাজ হল শিক্ষা দেওয়া ও শিক্ষা গ্রহণ করা।

আর আজকে দেশ এটাও সপ্তাহে একদিনের জন্য হারাবে। প্রতিষ্ঠান হয়তো ২ দিন বন্ধ থাকবে। এখানে কারা কারা সুবিধা পাবে, শুধূ কি বিদ্যুৎ এর সাথে যারা জড়িত নাকি অনেকেই।

সরকারের কাছে আমার অনুরোধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যেনো সরকারী ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নির্ধারিত ছুটি ছাড়া বন্ধ না করা হয়। স্কুল, কলেজ যেনো বন্ধ না করা হয়।

Post a Comment

নবীনতর পূর্বতন